মঙ্গলবার, ২৫ Jun ২০১৯ | ১১ আষাঢ় ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

First Youth News Portal in Bangladesh

add 468*60

শিরোনাম

বিশ্ব উদ্যোক্তা সম্মেলনে বাংলাদেশের ৬ তরুণ খেলাধুলায় এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশের নারী ঢাকায় কমিউনিকেশন ফর ক্যারিয়ার শীর্ষক কর্মশালা ৪ মে বানানভীতি রোধে প্রসঙ্গ ব্যাবহারিক বাংলা রক্তে লেখা বাংলা ইসলামী আদর্শ ও মূল্যবোধ প্রতিষ্ঠায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান শীর্ষক বইয়ের আত্মপ্রকাশ একজন মানবসম্পদ কর্মী হওয়ার প্রাথমিক পাঠ কলাগাছিয়া ইকোট্যুরিজমে রহস্যময় সুন্দরবনের সৌন্দর্য কলাগাছিয়া ইকোট্যুরিজমে রহস্যময় সুন্দরবনের সৌন্দর্য স্বপ্ন জয়ের স্বপ্নযাত্রা ভিন্নদৃষ্টির বিজয় র‍্যালি আন্তর্জাতিক রোবট অলিম্পিয়াডে বাংলাদেশের স্বর্ণ জয় তরুণ প্রজন্মের উদ্যোক্তা হওয়ার বাধা জুনিয়র সায়েন্স অলিম্পিয়াডে বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের সাফল্য সেন্ট মার্টিন্স দ্বীপে রাত্রিযাপন নিষিদ্ধ হচ্ছে না

ঢাকায় ব্রাজিলের খাবার

ব্রাজিলের খাবার

২০ এপ্রিল ঢাকা রিজেন্সি হোটেল অ্যান্ড রিসোর্ট আয়োজন করেছিল ‘ব্রাজিলিয়ান উইক ফুড অ্যান্ড কালচারাল ফেস্টিভ্যাল’। ফুটবলের রাজা পেলের দেশ থেকে আগত দুজন শেফ অতিথিদের জন্য তৈরি করেছেন মুখরোচক নানা খাবার। রকমারি খাবারগুলোর মধ্যে রয়েছে ব্রাজিলিয়ান চিজ বল, পিকানা মিট উইথ কাসাভা ফ্লাওয়ার অ্যান্ড ভিনেগার সস, বানানা উইথ সিনেমন, মিট উইথ সুইট পটেটো, ব্রাজিলিয়ান নাট উইথ চকলেটসহ মজাদার সব খাবার। কথা হয় রাজধানী উত্তরার বাসিন্দা সুমন ইসলামের সঙ্গে। তিনি বলেন, ‘ব্রাজিল মানেই আমাদের কাছে ফুটবল। ফুটবলের দেশ হিসেবেই ব্রাজিলকে এত দিন চিনতাম। কিন্তু এ দেশের খাবারও যে এত মজাদার, এটা এই আয়োজনে এসে বুঝলাম।’ পরিবারের সবাইকে নিয়ে ব্রাজিলিয়ান উইক ফুড অ্যান্ড কালচারাল ফেস্টিভ্যালে এসেছিলেন ব্যবসায়ী মুমিনুর রহমান। পেলে, জিকোর নাম শুনে এবং রোমারিও, বেবেতো ও নেইমারদের খেলা দেখেই ব্রাজিলকে এত দিন সাপোর্ট করতাম। আজ দেশটির খাবার আর গান শুনে দেশটির প্রেমে পড়ে গেলাম। একেক জায়গার খাবার একেক রকম হবে এটাই স্বাভাবিক, কিন্তু ব্রাজিলের খাবার সত্যিই একটু অন্য রকম আর স্বাদও লোভনীয়।

আয়োজনে ব্রাজিলের সংগীতশিল্পী ইন্ডিয়ানা নোমার বিশেষ সংগীতানুষ্ঠানও আগতদের মাতিয়ে রেখেছিল। পুরো হোটেলেই ছিল ব্রাজিলের সংস্কৃতির আমেজ।

এই উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ব্রাজিলের রাষ্ট্রদূত জোয়াও টাবাজারা অলিভিয়েরা জুনিয়ার, ডেপুটি হেড অব মিশন জুলিও সিজার সিলভা এবং ঢাকা রিজেন্সি হোটেল অ্যান্ড রিসোর্টের চেয়ারম্যান মুসলেহ আহমেদ, নির্বাহী পরিচালক শাহিদ হামিদ এফআইএইচ প্রমুখ।

২৫ এপ্রিল পর্যন্ত চলবে এই উৎসব। খাওয়া যাবে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা থেকে রাত সাড়ে ১০টা পর্যন্ত গ্র্যান্ডডিয়স রেস্টুরেন্টে।