শুক্রবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৮ | ৩ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

First Youth News Portal in Bangladesh

add 468*60

শিরোনাম

বিশ্ব শান্তির প্রসারে দক্ষিণ কোরিয়ার শান্তি সামিট অনুষ্ঠিত আত্মহত্যা নয়, জীবনকে উপভোগ করুন চবি ক্যাম্পাসে উজ্জ্বল রুমান কনভারশন ডিসঅর্ডার: দরকার সচেতনতা   ইউএনও’র ব্যতিক্রমী উদ্যোগ: দৃষ্টিনন্দন বিল পরিস্কার করলেন নিজেই যুদ্ধকালীন সাংবাদিকতার প্রশিক্ষণ পেলেন রবিউল হাসান ম্যানেজমেন্ট অ্যপ্রোচ ও ভিশন: মালিক-এর চাওয়া ও কর্মী’র প্রতিক্রিয়া দেখে এলাম এশিয়ার সর্ববৃহৎ ক্যাকটাস নার্সারি ওয়াইএসএসই-এর “রেজোন্যান্স-২.১ অনুষ্ঠিত নোবিপ্রবিতে ভর্তি আবেদন ১৬ই অক্টোবর পর্যন্ত বৃদ্ধি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তিযুদ্ধ    তরুণ প্রজন্মই পারে সবুজ পৃথিবী গড়তে উচ্চশিক্ষা ভাবনা, ক্যারিয়ার প্রতিবন্ধকতা ও উত্তরণ ১৭ সেপ্টেম্বর দক্ষিন কোরিয়ায়  শান্তি সামিট শুরু অনলাইনে হয়রানির শিকার হলে যা করবেন

বাংলাদেশী শিক্ষার্থীদের ইউসিএসআই ইউনিভার্সিটির বৃত্তি

ইয়ুথ জার্নাল প্রতিবেদক

সম্প্রতি মালয়েশিয়ার শীর্ষ স্থানীয় ইউসিএসআই ইউনিভাসির্টি বাংলাদেশী শিক্ষার্থীদের জন্য ৫০টি শিক্ষা বৃত্তি প্রদানের ঘোষনা দিয়েছে। ইউসিএসআই ইউনিভার্সিটি বিশ্ব র‌্যাংকিং-এ ৪৮১ এবং মালয়েশিয়ান প্রাইভেট ইউনিভার্সিটির মধ্যে ০১ নাম্বার।

ওই বিশ্ববিদ্যালয়টি বর্তমানে ইউকে, অস্ট্রেলিয়াসহ উন্নত বিশ্বের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর সমান তালে অবস্থান করছে। বৃত্তি তহবিলের মাধ্যেমে বাংলাদেশী শিক্ষার্থীরা কুয়ালালামপুরে একটি অর্থপূর্ণ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অভিজ্ঞতা উপভোগের সুযোগ পাবে এবং ‘সমবায় প্লেসমেন্ট’ কর্মসূচিতে শিক্ষার্থীরা অংশ নিবে।

প্রতিটি একাডেমিক বছরে শিক্ষার্থীরা ২ মাসের জন্য একটি স্বনামধন্য কোম্পানিতে ইর্ন্টানের সুযোগ পাবে। কো-অপারেটিভ শিক্ষাব্যবস্থার মাধ্যমে ইউসিএসআই ইউনিভার্সিট শিক্ষার্থীরা পড়াশুনার পাশাপাশি চাকুরীর অভিজ্ঞতা অর্জনের মাধ্যমে কর্মজীবনের উদ্দেশ্য ও লক্ষ্য অর্জনে সহায়ক ভূমিকা পালন করছে।

৪ হাজার শিল্প প্রতিষ্ঠানের সাথে এই বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্ম সহায়ক নেটওয়ার্ক রয়েছে। শিক্ষার্থীদের স্থানীয় ও বিদেশী অভিজ্ঞতা প্রদানের জন্য সংস্থাগুলোতে প্লেসমেন্ট বা কো-অপারেটিভ প্লেসমেন্টের মাধ্যমে গড়ে তোলা হয়।

মালয়েশিয়া একটি মুসলিম দেশ। বাংলাদেশের সাথে রয়েছে সে দেশের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক। বাংলাদেশী শিক্ষার্থীরা সহজেই মানিয়ে নিতে পারে। পড়াশুনা, থাকা খাওয়ার খরচও কম। মালয়েশিয়াতে জীবনযাত্রার মান খুবই উন্নত। বাংলাদেশের সাথে সাংস্কৃতিক ও খাদ্যগত মিল রয়েছে।

মালয়েশিয়াতে একজন স্টুডেন্ট ফাউন্ডেশন, ডিপ্লোমা, ব্যাচেলর, মাস্টার্স, পিএইচডি প্রোগ্রামে অংশ নিতে পারবে। ব্যবসা, চিকিৎসা, কম্পিউটার, কলা, ইঞ্জিনিয়ারিং, স্থাপত্য এবং আরও অনেক বিষয়ে ভর্তি হতে পারবে। বাংলাদেশী শিক্ষার্থীদের জন্য ১০০% পর্যন্ত বৃত্তি রয়েছে। 

বিশ্ববিদ্যালয় থেকে জানা গেছে, আগামী সেপ্টেম্বর ইনটেকে ভর্তি প্রক্রিয়া চলমান এবং আবেদনের শেষ তারিখ ৬ আগস্ট। বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে অনলাইনে আবেদন করার জন্য শিক্ষার্থীদের উৎসাহিত করা হয়। বিশ্ববিদ্যালয় এবং প্রোগ্রামগুলোর জন্য ভিজিট করুন: ucsiuniversity.edu.my

বর্তমানে বেশ কিছু প্রতিষ্ঠান এ বিষয়ে শিক্ষার্থীদের সহযোগিতা করছে। এর মধ্যে বাংলাদেশ মালয়েশিয়া স্টাডি সেন্টার অন্যতম। মালয়েশিয়ায় উচ্চশিক্ষা ও ভিসা প্রসেসিং এর ক্ষেত্রে শিক্ষার্থীদের সর্বাত্মক সহযোগিতা করে থাকে প্রতিষ্ঠানটি।

দীর্ঘ ১ যুগের বেশি সময় ধরে কাজ করছে বাংলাদেশ মালয়েশিয়া স্টাডি সেন্টার। এখান থেকে স্টুডেন্টের যোগ্যতা, অর্থনৈতিক সামর্থ্য, উদ্দেশ্য, ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা অনুযায়ী কোর্স ও ইউনিভার্সিটি সিলেক্ট করে দেয়া হয়, যাতে একজন স্টুডেন্ট সহজে ডাইজেস্ট করতে পারে।

এই প্রতিষ্ঠানটির মাধ্যমে মালয়েশিয়াতে পড়াশোনা করতে গেলে স্টুডেন্টকে প্রি ডিপারচার ট্রেনিং দেয়া হয় ফ্রি অফ চার্জ, ফলে স্টুডেন্ট ফ্লাই করার পূর্বে মালয়েশিয়া সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা ও তথ্য নিতে পারে। এতে করে মালয়েশিয়ায় যাওয়ার পর স্টুডেন্টকে কোনো ভোগান্তিতে পড়তে হয় না।

আরও অনুসন্ধানের জন্য যোগাযোগ করুন: বাংলাদেশ মালয়েশিয়া স্ট্যাডি সেন্টার লি:
বিটিআই সেন্ট্রাল প্লাজা (৫ম তলা)
ফার্মগেট, ঢাকা, 
ফোন: ০২-৯১১৪১১১, ০১৭৭৭৩৩৩৩০০