সোমবার, ১৯ আগস্ট ২০১৯ | ৪ ভাদ্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

First Youth News Portal in Bangladesh

add 468*60

শিরোনাম

সমাজে শান্তি প্রতিষ্ঠায় তরুণদের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ ডেঙ্গু বিষয়ে জরুরি বার্তা: প্রয়োজন সতর্কতা দেশে এক তৃতীয়াংশ যুবক বেকার : ড. দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য শিশুর প্রতি যৌনসহিংসতা: নজরদারি মানেই নিরাপত্তা নয় সবুজের সমারোহ বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তির যাবতীয় কার্যক্রম এখন  মোবাইল এ্যাপস "এডমিশন এসিস্ট্যান্ট" এ মানুষ স্বপ্নকে বাঁচিয়ে রাখে না, স্বপ্নই মানুষকে বাঁচিয়ে রাখে; মাশরাফি: এক উদ্দীপনার নাম সমাজে শান্তি প্রতিষ্ঠা ও সংঘাত দূরীকরণে গণমাধ্যমের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ সমাজ বিনির্মাণে সৃষ্টিশীল তারুণ্য আক্রান্ত তারুণ্য, বিপর্যস্ত তারুণ্য ৭১-এর আওয়ামী লীগের ভাবনায় তারুণ্য তারুণের ভাবনায় আওয়ামী লীগ শীর্ষক মতবিনিময় ২৯ জুন বাংলাদেশের প্রথম আইটি বিজনেস ইনকিউবেটর হচ্ছে চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (চুয়েট) বিশ্ব উদ্যোক্তা সম্মেলনে বাংলাদেশের ৬ তরুণ

‘প্রিন্স মাহমুদ মিক্সড’ অ্যালবামে গাইলেন তপু ও কনা

প্রিন্স মাহমুদ, তপু, কনা

২৩ বছর ধরে প্রায় প্রতিবছর অ্যালবাম প্রকাশ করে আসছেন গীতিকার ও সুরকার প্রিন্স মাহমুদ। এবারই প্রথম নিজের নামে তৈরি করলেন অ্যালবাম। ‘প্রিন্স মাহমুদ মিক্সড’ নামের এই অ্যালবামের প্রথম গানে কণ্ঠ দিয়েছেন তপু ও কনা। দুজনের দ্বৈত কণ্ঠে গাওয়া এবারই প্রথম। ‘ঘোর’ শিরোনামের এই গানের রেকর্ডিং শেষ হয়েছে সম্প্রতি।

অ্যালবামের নাম প্রসঙ্গে প্রিন্স মাহমুদ বলেন, ‘২৩ বছরে অনেক গানই করেছি। শ্রোতাপ্রিয়তাও পেয়েছি, কিন্তু এ প্রজন্মের অনেকেই জানে না গানগুলো আমার। এ কারণেই এমন নামকরণ করেছি। প্রথম গানটি গেয়েছে তপু ও কনা। দুজনেই চেষ্টা করেছে যেন গানটি ভালো হয়। আমার বিশ্বাস, গানটি অনেকেরই পছন্দ হবে।’ তিনটি একক আর দুটি দ্বৈত গান থাকবে অ্যালবামে। অন্য গানগুলো কারা গাইছেন? এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, ‘শুধু এটুকু বলব, দারুণ কিছু গান তৈরি করেছি। এই গানগুলোতে কণ্ঠ দেবেন কয়েকজন শ্রোতাপ্রিয় শিল্পী, যাঁদের গানের মেধা আছে।’

‘ঘোর’ গান প্রসঙ্গে তপু বলেন, ‘প্রিন্স ভাইয়ের কথা ও সুরে গাইতে পারার আনন্দটাই অন্য রকম। তাঁর সঙ্গে এর আগেও গান করার সুযোগ হয়েছে। ছোটবেলা থেকে এই মানুষটার কথা ও সুরের সঙ্গে আমার বেড়ে ওঠা, তাই নস্টালজিক একটি ব্যাপারও কাজ করেছে।’ কনা বলেন, ‘প্রিন্স মাহমুদ আমাদের সবার কাছে অন্য রকম একটা ব্যাপার, তাঁর কথা ও সুরে গান গাওয়ার জন্য উৎসুক হয়ে থাকি। সব গান তো আর একভাবে গাওয়া হয় না। প্রিন্স ভাইয়ের গান গাই আনন্দ থেকে।’